জৈন্তাপুর সীমান্ত বেন্ডিস করিমের নিয়ন্ত্রণে, সরকার হারাচ্ছে রাজস্ব!

প্রকাশিত: ৯:৪৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৪

জৈন্তাপুর সীমান্ত বেন্ডিস করিমের নিয়ন্ত্রণে, সরকার হারাচ্ছে রাজস্ব!

ক্রাইম প্রতিবেদক: সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার সীমান্ত এখন বিজিবির সোর্স চোরাচালান রাজ্যের মুকুটহীন সম্রাট সীমান্তের রাজা চোরাচালান চক্রের গড়ফাদার বেন্ডিস করিম এর নিয়ন্ত্রণে। সরকারের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে চোরাচালান চক্রের গড়ফাদার বেন্ডিস করিম প্রতিদিন রাতে ভারত থেকে অবৈধভাবে গরু, স্বর্ণ, মদ, গাঁজা, ইয়াবা, অস্ত্র, ভারতীয় ফালি (কাঠ), লাকড়ি, জাল টাকা, মাছ ধরার বরশি, শাক-সবজি, ভারতীয় বিড়ি ও গরু পাচাঁর করছে। পাচাঁরকৃত মালামাল থেকে নামে-বেনামে চাঁদা উত্তোলনের অভিযোগ নিয়ে পত্রিকায় একাধিক বার সংবাদ প্রকাশের পর প্রশাসনের পক্ষ থেকে বেন্ডিস করিম এর বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ না নেওয়ার কারণে এই চোরাচালান চক্রের গড়ফাদার লাইনম্যানের দাপট ও চাঁদাবাজির পরিমান আরো বেড়ে গেছে।

 

নাম আব্দুল করিম। বাড়ি সীমান্ত রাজ্য জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের ঘিলাতৈল গ্রামে। পিতার নাম মছদ্দর আলী। অবশ্য আবদুল করিম নাম বললে কারো সাধ্য নেই লোকটিকে চেনার। বিশেষণ হিসেবে নামের আগে যুক্ত করতে হবে বেন্ডটিস। অর্থ্যাৎ বেন্ডটিস করিম। এই নামেই জৈন্তার চোরাচালান রাজ্যের সাথে মিশে গেছে নামটি। তাঁর নেই কোনো প্রতিদ্বন্দ্বি। তিনি চোরাচালান রাজ্যের মুকুটহীন সম্রাট।

 

স্থানীয় এলাকার লোকজন তাকে সীমান্তের রাজা হিসাবে চিনেন। কিন্তু চোরাচালান চক্রের গড়ফাদার বেন্ডিস করিম এখন এক লক্ষ টাকার বিনিময়ে জৈন্তাপুর বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী। বেন্ডটিস করিম তার একটি চোরাচালান চক্র নিয়ে সীমান্ত এলাকায় ত্রাসের রামরাজত্ব কায়েম করছে। বিনিময়ে বেন্ডটিস করিম তার বাহিনীর লোকজন নিয়ে জৈন্তাপুর সীমান্ত দিয়ে দিনের আলোতে ও রাতের আধাঁরে টাকার বিনিময় বুঙ্গার মাল পাচার করছে।

 

বেন্ডটিস করিম এর লাইনম্যানদের পাহরায় টিপরাখলা ও ঘিলাতৈল সীমান্ত দিয়ে শীর্ষ চোরাকারবারীদের বড় বড় গরুর চালান দেশে আসছে। সাথে রয়েছে মাদকের চালান। মটরশুঁটির বদলে ভারতে যাচ্ছে দেশী সুপারী। বেন্ডটিস করিম কিন্ত রাজার বেশে তার রাজত্ব চালিয়ে যাচ্ছে। সে কোন কিছুর পরোয়া করছে না।

 

কিন্তু রহস্যজনক কারণে স্থানীয় প্রশাসন সীমান্তের রাজা চোরাচালান চক্রের গড়ফাদার বেন্ডিস করিম এর বিরুদ্ধে কোন আইনি ব্যবস্থা না নেওয়ায় সে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। সীমান্ত এলাকায় বেন্ডটিস করিম ত্রাসের রামরাজত্ব কায়েম করছে। জৈন্তাপুর উপজেলায় রয়েছে তার দুইটি বিলাশ বহুল বাড়ি ও গাড়ি। রয়েছে কোটি কোটি টাকার অবৈধ সম্পত্তি। সরকারের কোটি কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে চোরাচালানকারীদের নেতৃত্ব দিয়ে বেন্ডিস করিম এখন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ। সরকারি গোয়েন্দা সংস্থার কোন নজর নেই করিমের উপর। তার এমন কান্ড দেখে অবাক উপজেলাবাসী। চোরাচালান চক্রের গড়ফাদার বেন্ডিস করিম এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া জরুরী বলে মনে করছেন উপজেলার সচেতন মহল।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ