নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক মুজিবুরসহ আহত ৭

প্রকাশিত: ৮:৩২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০২৩

নবীগঞ্জে সন্ত্রাসী হামলায় সাংবাদিক মুজিবুরসহ আহত ৭

নবীগঞ্জ সংবাদদাতা: বীগঞ্জের আউশকান্দি কিবরিয়া চত্ত্বরে ১৭ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টায় একদল চিহ্নিত সন্ত্রাসী চাঁদাবাজদের হামলায় প্রেসক্লাবের সাবেক সহসভাপতি এম.মুজিবুর রহমান (৪৬) গুরুতর আহত হয়েছেন। এসময় তার কাছথেকে ২টি দামী মোবাইল ফোন ১ টি ক্যামেরা ও নগদ ১ লক্ষ ১০ হাজার টাকা লুট করে নেয় হামলাকারীরা ৷

 

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে নবীগঞ্জ থানার এস আই গৌতম সহ একদল পুলিশ উপস্থিত হন। এসময় পুলিশের চোখের সামনেই ২য় দফা হামলা চালিয়ে দুপুর সাড়ে ১২টায় সন্ত্রাসীরা প্রত্যক্ষদর্শী পিক-আপ চালক তজমুল আলী (৪০) ও শ্রমিক নেতা এহিয়া আহমেদ (৩৮) কে, সোপান মিয়া (৩২), মুক্তার মিয়া-(৩৫), সেলিম মিয়া (২৭),ওলি মিয়া (৩৫) গুরুতর রক্তাক্ত জখমী করে সন্ত্রাসীরা। আহতদের মধ্যে ৩ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে এবং বাকীদের নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে৷

 

জানা যায়- নবীগঞ্জ উপজেলার ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আউশকান্দি কিবরিয়া চত্ত্বর বাসস্ট্যান্ডে সিলেট যাবার পথিমধ্যে যাত্রীবাহী গাড়ীর জন্য ঘটনার সময় অপেক্ষামান সাংবাদিক মুজিবুর রহমানের উপর তাকে প্রাণে হত্যার উদ্দেশ্য অতর্কিত হামলা চালায় এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী একাধিক মামলার আসামী দেওতৈল গ্রামের মৃত আবাস মিয়ার পুত্র আবুল খয়ের (৪০) ও তার সহযোগী আরো ৭/ ৮ জন৷

 

এসময় উপস্থিত লোকজনের প্রাণপণ চেষ্টায় অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা হলেও তিনি গুরুতর হন। পরে স্থানীয় লোকজনের প্রচেষ্টায় তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয় ৷

 

হঠাৎ সাংবাদিকের উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলার কারণ জানতে চাইলে প্রত্যক্ষদর্শী পিক-আপ চালক শ্রমিক নেতা আউশকান্দি গ্রামের আপ্তাব মিয়ার পুত্র তজমুল আলী ও শ্রমিক নেতা এহিয়া সহ উল্লেখিত ব্যক্তিদের ওপর আবারো সন্ত্রাসী খয়ের বাহিনীর প্রধান বাস চেকার আবুল খয়ের ও তার লোকজন হামলা করে ৬ জনকে আহত করে৷

 

এ বিষয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত সাংবাদিক মুজিবুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তার ভাতিজি সিলেট রাগিব রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চিকিৎসাধীন,তার চিকিৎসার খরচ সহ উল্লেখিত টাকা নিয়ে সিলেট যাবার পথে পূর্ব থেকে ওৎপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা হামলা করে টাকা, মোবাইল ও ক্যামেরা সহ ব্যাগ লুট করে নেয়৷

 

এব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার ওসি মাসুক আলী বলেন- আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেছি৷ তবে এখনো কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি৷ অপরদিকে ঘটনার মূল হোতা সন্ত্রাসী আবুল খয়ের ও তার বাহিনি কর্তৃক এস/আই গৌতম এর সামনে নিরপরাধ লোকজনের উপর হামলা চালিয়ে তাদেরকে আহত করে৷ এসময় এস/আই গৌতম হামলাকারী আটক করলেও রহস্যজনকভাবে ছেড়ে দেন৷

 

এঘটনায় আউশকান্দি এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে এমনকি যেকোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছেন এলাকাবাসী৷

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ