বিশ্বম্ভপুরে সেনাসদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজি, দুই প্রতারক আটক

প্রকাশিত: ৭:১১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১০, ২০২৪

বিশ্বম্ভপুরে সেনাসদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজি, দুই প্রতারক আটক

বিশ্বম্ভপুর সংবাদদাতা: সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুরে সেনাসদস্য পরিচয়ে মালবাহী গাড়ি থেকে চাঁদাবাজি করার সময় দুই প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ। আটকরা হলেন সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার জানিগাঁও গ্রামের একলাছ মিয়ার ছেলে সুলভ মিয়া (২৬) ও একই গ্রামের আমিরুল ইসলামের ছেলে গোলাম হোসেন খোকন (৩০)।

 

শনিবার উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের বাঘবেড় বাজার থেকে তাদের আটক করা হয়।

 

রোববার দুপুরে বিশ্বম্ভরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

 

পুলিশ জানায়, সুলভ মিয়া ও গোলাম হোসেন সেনাসদস্য পরিচয়ে শনিবার রাতে একটি পিকআপ ভ্যান আটকে বিশ্বম্ভরপুরের বাঘবেড় বাজারে থেকে তাদের সুনামগঞ্জে নিয়ে আসতে বলেন। তখন পিকআপের চালক শাহাব উদ্দিন তাদের গাড়িতে তুলবেন না বলে জানালে ওই দুজন চালকের গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চান। এসময় চালক কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। পরে গাড়ি থানায় নিয়ে যাওয়া হবে বলে ভয় দেখান ওই দুজন।

 

গাড়ি থানায় নেওয়া থেকে রেহাই পেতে তারা ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। তখন চালক গাড়ি থেকে নেমে তাদের পায়ে ধরে ক্ষমা চাইলেও তারা তাকে মারধর করেন। বিষয়টি সেখানে থাকা স্থানীয়দের সন্দেহ হলে তারা বিশ্বম্ভরপুর থানার পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ওই দুজন দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। এসময় স্থানীয়রা তাদের ধরে পুলিশের কাছে তুলে দেন।

 

ওসি শ্যামল বণিক জানান, আটক দুজনের শরীর তল্লাশি করে আইডি কার্ড ও সেনাবাহিনীর পোশাকসদৃশ টি-শার্ট জব্দ করা হয়েছে। চাঁদাবাজির অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ