শাহপরানে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আসামী গ্রেফতার

প্রকাশিত: ১:১৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১

শাহপরানে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নারীকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আসামী গ্রেফতার
নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেট শহরতলীর শাহপরান (রহঃ) থানাধীন চৌধুরীপাড়া এলাকায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।
ওই নারী (২০) এর দায়ের করা মামলায় শাহপরান (রহঃ) থানাধীন পীরেরচক এলাকার বশির মিয়ার পুত্র সিরাজ মিয়াকে গ্রেফতার করেছে শাহপরান (রহঃ) থানা পুলিশ।
মামলা ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ওই নারীর সাথে আসামী প্রায় ১ বছর যাবত প্রেমের সম্পর্ক চলিতেছে। আসামী ওই নারীকে মৌখিকভাবে বিবাহের সম্মতি পোষণ করিলেও আইনগত ভাবে আসামী কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করে নাই। আসামী ওই নারীকে বিবাহ করিবে বলিয়া কালক্ষেপণ করিয়া আসিতেছিল এবং তাহার সরলতার সুযোগ নিয়ে বিগত ১ মাস যাবত বিবাহের প্রলোভন দেখাইয়া গত ০১ আগস্ট ২০২১ ইং তারিখে শাহপরান (রহঃ) থানাধীন চৌধুরীপাড়াস্হ জলিল মিয়ার বাসায় ভাড়া নিয়ে একত্রে বসবাস করিয়া তাহাকে বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করে এবং সর্বশেষে গত ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ইং তারিখে আসামী পূনরায় তাহাকে ধর্ষণ করার পর তাহাকে বিবাহের ব্যাপারে কথা বলায় আসামী তাহাকে বিবাহ করবে না বলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও কিল-ঘুষি মারে।  এ সময় ওই নারীর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে গিয়ে আসামীকে আটক করে পুলিশে খবর দেন। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে পরে চিকিৎসার জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠায়।
এ ঘটনায়  নারী বাদী হয়ে গত ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ইং তারিখে শাহপরান (রহঃ) থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী/০৩) এর ৯(১) ধারায় মামলা দায়ের করেন, যাহার শাহপরান (রহঃ) থানার মামলা নং-০২।
এ ব্যাপারে শাহপরান (রহঃ) থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ আনিসুর রহমান বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত সিরাজ মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  ভিকটিমকে চিকিৎসার জন্য ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে এবং আসামীকে বাদীর দায়েরকৃত নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ ইং তারিখে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ